মায়ানমারে প্রথমবারের মতো মুসলিম প্রার্থী দিলো এনএলডি

মায়ানমারে প্রথমবারের মতো মুসলিম প্রার্থী দিলো ক্ষমতাসীন ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমক্রেসি (এনএলডি)। বৃহস্পতিবার আসন্ন নির্বাচনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করছে দলটি। এই তালিকায় দলের বর্তমান এমপি ও মুখ্যমন্ত্রীদের বেশিরভাগ স্থান পেয়েছেন। তবে এবারই প্রথম দেয়া হয়েছে মুসলিম প্রার্থী। বেড়েছে নারী প্রার্থী সংখ্যা।

আগামী ৮ নভেম্বর মায়ানমারে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনের তিন মাস বাকি থাকতে দলটি প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করলো।

তালিকায় ১,১৩২ প্রার্থীর নাম রয়েছে। এদের মধ্যে ৮০ শতাংশের মতো বর্তমান এমপি, যারা ২০১৫ সালের নির্বাচনে জয়ী হয়েছিলেন।

ওই নির্বাচনে সেনা সমর্থিত ইউনিয়ন সলিডারিটি অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট পার্টি (ইউএসডিপি)-কে বিপুল ব্যবধানে পরাজিত করে ২০১৬ সালে সরকার গঠন করে এনএলডি।

বৃহস্পতিবার নির্বাচিত প্রার্থীদের প্রতি এক ভিডিও বার্তায় এনএলডি চেয়ারউইমেন ও স্টেট কাউন্সিল অং সান সু চি স্বীকার করেন যে তালিকায় নতুন মুখ কম।

তিনি বলেন, ১৯৯০ সাল থেকে নির্বাচনী অভিজ্ঞতা থেকে দল ‘আনুগত্য’ ও ‘অভিজ্ঞতা’কে অগ্রাধিকার দিয়েছে।

তবে আগের চেয়ে এবার বেশি নারী প্রার্থী দিয়েছে এনএলডি। প্রার্থীদের মধ্যে ২০ শতাংশ নারী। ২০১৫ সালে এই হার ছিলো ১৫ শতাংশ।

এবারই প্রথম দুইজন মুসলিম প্রার্থী দেয়া হয়েছে এরা হলেন, দাও উইন মিয়া ও কো সিথু মং। দুই জনই সাবেক রাজনৈতিক বন্দী। তারা মান্দালে ও ইয়াঙ্গুন অঞ্চল থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

জাতিগত এলাকাগুলোতে স্থানীয় জাতিগত প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেয় এনএলডি।

দ্য ইরাবতি অবলম্বনে

মায়ানমারে প্রথমবারের মতো মুসলিম প্রার্থী দিলো এনএলডি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *