জামিন পেলেন টোকন ঠাকুর

সরকারি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে তথ্য মন্ত্রণালয়ের দায়ের করা মামলায় জামিন পেলেন কবি ও চলচ্চিত্র পরিচালক টোকন ঠাকুর। সোমবার ম্যাজিস্ট্রেট আবু সুফিয়ান মোহাম্মদ নোমান শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

আসামিপক্ষের আইনজীবী প্রকাশ রঞ্জন বিশ্বাস জামিনের আবেদন করেন। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী হেমায়েত উদ্দিন খান হিরণ জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক জামিনের এই আদেশ দেন। এর আগে রবিবার রাতে নিউমার্কেট এলাকা থেকে টোকন ঠাকুরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

জানা গেছে, টোকন ঠাকুর ২০১৩ সালে কথাশিল্পী শহীদুল জহিরের গল্প ‘কাঁটা’ অবলম্বনে চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য সরকারি অনুদান পান। ৩৫ লাখ সরকারি অনুদানের মধ্যে ১৩ লাখ টাকা তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে তুলে নিলেও ওই চলচ্চিত্রের কোনও কাজ করেননি তিনি।

অনুদানের অর্থ গ্রহণের নয় মাসের মধ্যে ছবি মুক্তি দেওয়ার নিয়ম থাকলেও আট বছরেও তা সম্পন্ন করতে পারেননি তিনি।

ছবি নির্মাণ শেষ করতে কিংবা অর্থ ফেরত চেয়ে একাধিকবার তাকে চিঠি পাঠিয়েও কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি।

এ কারণে সরকারি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে তথ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষে টোকন ঠাকুরের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়

এর আগে রবিবার সন্ধ্যার পরে কাঁটাবন এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

নিউমার্কেট থানার ওসি শ ম কাইয়ুম জানান, “টোকন ঠাকুরের বিরুদ্ধে সিএমএম কোর্টে একটি মামলা ছিল। আদালত থেকে পাওয়া গ্রেপ্তারি পরোয়ানার ভিত্তিতে তাকে সন্ধ্যায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে।”

মামলাটি কী অভিযোগের, তা জানাতে পারেননি তিনি।

কথা সাহিত্যিক শহীদুল জহিরের ছোটগল্প ‘কাঁটা’ অবলম্বনে একই শিরোনামে একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য ২০১১-১২ অর্থবছরের সরকারি অনুদান পেয়েছিলেন টোকন ঠাকুর।

ছবি নির্মাণ শেষ করতে কিংবা অর্থ ফেরত চেয়ে একাধিকবার তাকে চিঠি পাঠিয়েও কোনও উত্তর না পাওয়ায় তার বিরুদ্ধে ২০১৬ সালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মামলা দায়ের করেছিল তথ্য মন্ত্রণালয়।

তথ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব (চলচ্চিত্র) সাইফুল ইসলাম জানান, “এক মাস আগে আমরা জেনেছিলাম তার বিরুদ্ধে সেই মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছে।”

জামিন পেলেন টোকন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *