চলতি মাসেই ৪২তম বিশেষ বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি

চলতি মাসেই ৪২তম বিশেষ বিসিএস পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হতে পারে। করোনা মোকাবিলায় বিশেষ বিসিএসের মাধ্যমে আরো দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দিতে যাচ্ছে সরকার। এ লক্ষ্যে বিধিমালা সংশোধন করা হয়েছে। সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি) থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

বুধবার সরকারি প্রেসের (বিজি) ওয়েবসাইটে এই প্রজ্ঞাপনের অনুলিপি প্রকাশ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পিএসসি সূত্র জানিয়েছে, ‘আমরা বিধিমালা সংশোধন করতে জনপ্রশাসনে চিঠি দিয়েছিলাম। এখন যেহেতু এটি হয়ে গেছে, তাই এটি নিয়ে আগামী সপ্তাহে কমিশন বিশেষ সভা করবে। খুব সম্ভবত এই মাসেই বিশেষ এই বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হতে পারে।’

সংশোধিত বিধিমালায় ‘জনগণের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে জরুরি নিয়োগ’ সংক্রান্ত বিধিতে বলা হয়েছে, এই বিধিমালা বা আপাতত বলবৎ অন্য কোনো বিধিমালাতে যা কিছুই থাকুক না কেন, সরকার জনগণের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ৩০০ নম্বরের (এমসিকিউ লিখিত পরীক্ষা ২০০ নম্বর ও ১০০ নম্বরের মৌখিক) পরীক্ষার মাধ্যমে বিসিএস স্বাস্থ্য ক্যাডারের এন্ট্রি লেভেল পদে এককালীন নিয়োগ দিতে পারবে।

২০০ নম্বরের দুই ঘণ্টার লিখিত পরীক্ষায় মেডিক্যাল সায়েন্স বিষয়ে ১০০ নম্বর, বাংলা ২০, ইংরেজি ২০, বাংলাদেশ বিষয়াবলী ২০, আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী ২০ম মানসিক দক্ষতা ১০ ও গাণিতিক যুক্তি ১০ নম্বর বরাদ্দ থাকবে। প্রতিটি এমসিকিউ প্রশ্নের সঠিক উত্তরের জন্য ১ নম্বর এবং ভুল উত্তরের জন্য ০.৫০ নম্বর কাটা যাবে। লিখিত পরীক্ষায় পাস নম্বর কমিশন নির্ধারণ করবে। মৌখিক পরীক্ষায় পাস নম্বর ৫০।

পিএসসি জানায়, করোনায় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুসারে ৩৯তম বিসিএসের নন-ক্যাডার থেকে দুই হাজার চিকিৎসক নেয়া হয়। তারা ক্যাডার হিসেবে নিয়োগের জন্য সুপারিশপ্রাপ্ত হন ৩৯তম বিসিএসের অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে। স্বাস্থ্য ক্যাডারের সহকারী সার্জন হিসেবে তাদের নিয়োগের সুপারিশ করা হয়। করোনায় ৫ হাজার ৫৪ জন নার্স নিয়োগের সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন ২০১৮ সালের সিনিয়র স্টাফ নার্স নিয়োগ পরীক্ষার অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে।

চলতি মাসেই ৪২তম বিশেষ বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *